এবার আইসিসি সরাসরি জানিয়ে দিলো লিটনের আউট হয়েছিলো না হয় নি

41
এবার আইসিসি সরাসরি জানিয়ে দিলো যে লিটনের আউট হয়েছিলো না হয় নি-

আইসিসি সরাসরি জানিয়ে দিলো- এশিয়া কাপের ফাইনালে লিটনের স্ট্যাম্পিং নিয়ে দেশের সমর্থকদের মাঝে শুরু হয় বড় দ্বিধা দণ্ডের। সৃষ্টি হয় প্রচণ্ড ক্ষোভের। অনেক সমর্থকের দাবি লিটনকে টিভি আম্পায়ার অন্যায় ভাবে আউট দিয়েছেন।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে আইসিসি প্রণীত নতুন আইনে রয়ছে যে পপিং ক্রিজে অর্থাৎ অন দ্য লাইনে ব্যাটসম্যানের পা বা ব্যাট থাকলে তা আউট বলেই গণ্য হবে।

আর এইট নিয়ে কোন বিতর্কের অবকাশ নেই, এমনটাই বলছেন আইসিসির এই আম্পায়ার,

আইনেই আছে লাইনে পা থাকলে সব সময় আউট। এই আউটের বেপারের আমরা কি আইসিসি অথবা অন্য কোন জায়গায় কি রিপোর্ট করেছি? এইটা আউট ছিল না তার কোন জবাবদীহি করছি? আদৌ কি করতে পারবেন? না, কখনই না। এই জিনিস গুলা নিয়ে আমরা একটু বেশীই আবেগ হয়ে যাই কিন্তু আপনি কখনই আইনের বাইরে যেতে পারবেন না।

আইসিসির এই নতুন আইন পাশ হওয়ার লিটনের মত আউট নিয়ে বিতর্কের জন্ম হয়েছিল আরও বেশ কয়েক বার। গত নভেম্বরে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার টেস্টে মুঈন আলীর এমনই একটি আউট নিয়ে প্রশ্ন তুলে অনেকেই। মুঈন আলী ছিলে পপিং ক্রিজ বা অন দ্য লাইনে।

তার পরের মাসেই ভারত-শ্রীলংকার ম্যাচে ঘটে একি রকম ঘটনা। আইসিসির এই নতুন আইনে ব্যাটসম্যানের সুরক্ষার জন্য শুধু মাত্র পপিং ক্রিজ বা সাদা দাগের উপর পা বা ব্যাট থাকলে হবে না, দাগের পেছেনও কিছুটা অংশ থাকতে হবে।

মুশফিককে দলে নিতে মরিয়া ঢাকা ডাইনামাইটস

নির্বাচনজনিত কারণে বিপিএলের ষষ্ঠ আসর এ বছর অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। সময় পিছিয়ে এবারের আসর শুরু হবে আগামী বছরের ৫ জানুয়ারি থেকে। তবে বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফট অনুষ্ঠিত হবে ২৫ অক্টোবর থেকেই।

ড্রাফটের আগেই বেশ কিছু চমক দেখছে ক্রিকেট দুনিয়া। এই মুহূর্তে কোন ফ্র্যাঞ্চাইজি কাকে নিবে এ নিয়েই চলছে গুঞ্জন। আবার সবাইকে অবাক করে মুশফিকুর রহিমকে ছেড়ে দিয়েছে রাজশাহী কিংস। আর এই সুযোগে মুশফিককে দলে ভেড়াতে চায় ঢাকা ডাইনামাইটস।

এদিকে ইনজুরির অপারেশনের পর প্রায় তিন মাস মাঠের বাইরে থাকবেন সাকিব আল হাসান। আর এর ফলে তাকে বিপিএলে পাওয়া নিয়ে আছে প্রচুর সংশয়।

কিন্তু তার ফ্র্যাঞ্চাইজি ঢাকা ডাইনামাইটস তার জন্য শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করবে । এমনটাই জানিয়েছেন ফ্র‍্যাঞ্চাইজিটির প্রধান নির্বাহী ওবেদ আর নাজিম।

শেষ পর্যন্ত সাকিব সুস্থ হয়ে ডায়নামাইটস শিবিরে যোগ দিবেন আশা করে ওবেদ আর নাজিম বলেন, ‘আমরা আশা করছি সে (সাকিব) এর মধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠবে।

ও যদি টুর্নামেন্ট শুরুর এক সপ্তাহ পরেও এসে যোগ দেই তাহলেও আমাদের জন্য অনেক। সাকিবকে ছাড়ারতো কোন প্রশ্নই উঠে না। আমরা খুবই হোপফুল, ইনশাআল্লাহ্‌ সে সুস্থ হয়ে উঠবে বাকি দিনগুলার আগেই।’

আবার সাকিবকে না পেলে পঞ্চপান্ডবের আরেকজন মুখ মুশফিককে দলে নিতে চায় ঢাকা। সঠিক সুযোগ পেলেই মুশফিককে দলে নেবার ইচ্ছা প্রকাশ করে ঢাকা ডায়নামাইটসের নির্বাহী প্রধান ওবেদ আর নাজিম বলেন, ‘টিম তাকে রিটেইন করেনি, ঠিক কেনো তাকে রিটেইন করেনি আমরা তা বলতে পারি না। কিন্তু আমাদের যদি সুযোগ আসে মুশফিককে পাওয়ার, আমরা তাকে নিতে চাই।

জাতীয় দলে সুযোগ দিতে যে ২ জনের খেলা দেখতে রাজশাহী যাচ্ছেন নান্নু

আগামী ২১ অক্টোবর থেকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের ওয়ানডে সিরিজ। ওয়ানডে সিরিজ এরপরই রয়েছে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজ। কিন্তু দেশে ক্রিকেট এখন ইনজুরি আক্রান্ত। কমপক্ষে তিন মাসের জন্য ছিটকে গেছেন সাকিব আল হাসান।

আর তামিম ছিটকে গেছেন চার সপ্তাহের জন্য। কিছুটা ইঞ্জুরি রয়েছে মাশরাফি বিন মোর্তজার, মুশফিকুর রহিম এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের। কি হবে যদি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে এবং টেস্ট সিরিজে না থাকে বাংলাদেশের এই পঞ্চপান্ডব।

কেমন হবে দল? সাকিব-তামিম ছাড়াও বাকি তিন সিনিয়র মাশরাফি বিন মর্তুজা, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিম কি থাকছেন? হ্যাঁ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই ৩ সিনিয়র ক্রিকেটার চূড়ান্ত স্কোয়াডে থাকছেন।

কারণ জিম্বাবুয়েকে কোনভাবে হালকাভাবে নিচ্ছে না বাংলাদেশ দল। মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, “জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ হালকা করে নেয়ার সুযোগ নেই।

সেটাও একটা গুরুত্বপূর্ণ মিশন। কাজেই আমরা সামর্থ্যের সম্ভাব্য সেরা দল নিয়ে মাঠে নামার চেষ্টাই করবো। কাজেই কাউকে বিশ্রাম দেয়ার প্রশ্নই আসে না।

আমরা ১৪ জনের দল সাজাতে চাই। তাতে নতুন কারো অন্তর্ভুক্তির সম্ভাবনা খুব কম। এশিয়া কাপ স্কোয়াডের বাইরে থাকা কারোর ঢোকার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।’

তারপরেও নির্বাচকদের চোখ আছে রাজশাহীর মিজানুর রহমানের মিজানের দিকে। নান্নু জানিয়েছেন, ‘আমরা মিজানকে খুটিয়ে দেখব। পাশাপাশি নাজমুল শান্তর সর্বশেষ অবস্থাটাও পরখ করবো। তাই জাতীয় লিগের পরবর্তী পর্বে আমি রাজশাহী যাচ্ছি। মিজান ও শান্তর দল রাজশাহীর জাতীয় লিগের দ্বিতীয় ম্যাচ দেখতে।’